করোনা


করোনা

নাম ছিলো তার করোনা। খুব ছোট ছিলো যখন ওর জাতি মানে সার্স ভাইরাস পৃথিবীতে আক্রমণ করেছিল,সেই ২০১১সালে। যখন সার্স ভাইরাস পৃথিবীতে আক্রমণ করল তখন মহামারী শুরু হয়ে যায়। মানুষ তার বুদ্ধি দিয়ে সেটা প্রতিরোধ করতে জয়ী হয়। মানুষ সার্স ভাইরাস ধ্বংস করে কিন্তু পুরোপুরি নয়। সার্স ভাইরাস মানুষের কাছ থেকে হেরে গিয়ে পালিয়ে যায় চীন দেশে। তারা সেখানে কোথা লুকিয়ে থাকতো। সুযোগ পেলে দুই এক মানুষকে আক্রমণ করত।



 তাদের মধ্যেই বড় হচ্ছিলো ছোটো করোনা। যখন সাস ভাইরাসকে মানুষ ধ্বংস করে তাদের মধ্যে করোনার মা বাবাও ছিলো। তার প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য করোনা মনে মনে পণ করে যে সে পৃথিবীর সকল মানুষকে আলাদা করে ধ্বংস করে দিবে। সে তার দাদার সাথে থাকত।তারাও কিন্তু চীনে থাকতো। করোনা তার প্রতিশোধ নেয়ার জন্য বছর ধরে শক্তি সঞ্চয় করতে থাকে।অবশেষে সে অনেক শক্তিশালী হয়ে যায়। সে তার দলকেও শক্তি শালী করে তোলে।তাদের পরিকল্পনা ছিল যে মানুষকে আলাদা করে দিবে এবং তারপর তাদের ধ্বংস করে দিবে।তারা আক্রমণ করল প্রথমে চীনে। ধীরে ধীরে সংক্রামণ বেড়ে গেল সারা দেশে। ধীরে ধীরে সারা পৃথিবীতে। পৃথিবীর সকল মানুষকে ঘরের ভিতর থাকতে বলা হলো।৩ফিট দূরত্ব বজায় রেখে কথা বলতে বলা হলো। বিদেশ থেকে এলে ১৪দিন কোয়ারান্টাইন থাকতে বলা হলো। তারপর কিছু দিন পর লক ডাউন করে দেয়া হলো। এটাই তো চেয়েছিল করোনা যে মানুষ একসাধে থাকবে না আলাদা হয়ে যাবে! 



কিন্তু সে তো আর জীবদের মধ্যে সবচেরে বুদ্ধি মান মানুষকে চেনে না! এখন সবাই আধুনিক যুগের মানুষ, এখন অনেক যনএপাতি তৈরি হয়েছে যার মাধ্যমে মানুষ দূরে থেকেও আপনজনের কাছে থাকতে পারে। করোনা ভাবতেও পারেনি যে যদি মানুষকে আলাদা করে দেয় তাহলে সে একজন থেকে আরেকজনকে সংক্রমণ করতে পারবে না। কিন্তু যখন করোনা সেটা বুঝতে পারলো তখন সে নিজের আকৃতি পরিবর্তন করতে শুরু করে। সে আরও শক্তি সঞ্চয় করে বাতাসের মাধ্যমে ও ছড়াতে লাগলো।
 কিন্তু মানুষ সেটাতেও হার মানলো না!তারা সবাই মাস্ক পরলো,নিয়মিত সাবান পানি দিয়ে হাত পরিস্কার করলো,স্যানেটাইজার ব্যবহার করল,একে অপর থেকে দূরে থাকলো। তারপর আস্তে আস্তে ভ্যাকসিন তৈরি হয়ে গেলো। এভাবে তারা করোনা ও তার বাহীনিকে বিলুপ্ত করে দিলো!মানুষ আবারও জয়ী হলো!



 (বি.দ্র. লিখায় ভুল ক্রুটি ক্ষমার নজরে দেখবেন )



 .......রোদেলা রিদা......


অর্পন
Anik
Rubaia Islam Rapa
‎‎‎‎‎‎‎‎‎‎‎‎‎‎‎‎‎
তারা এই গল্পটি পছন্দ করেছেন ।

প্রথম মন্তব্য লিখুন


মন্তব্য লেখার জন্য আপনাকে অবশ্যই লগ ইন করতে হবে


আপনার জন্য

নীল দ্বীপ (পর্ব৩)

নীল দ্বীপ (পর্ব৩)

নীল দ্বীপ পর্ব ৩ মৃন্ময় ...

যখন সন্ধ্যা নামে

যখন সন্ধ্যা নামে

প্রতিদিন যখন সন্ধ্যা নাম...

পাশের বিল্ডিং এর ছাদে...

পাশের বিল্ডিং এর ছাদে...

পাশের বিল্ডিং এর ছাদে......

করোনা

করোনা

নাম ছিলো তার করোনা। খুব ...

আমি(শেষপর্ব)

আমি(শেষপর্ব)

তখন রাত।বসে আছি।ছাদে যেত...

রাত

রাত

সোউউ… করে একটা অটো চলে গ...

বন্ধু

বন্ধু

রিজু,আমার বেস্ট ফ্রেন্ড।...

Birthday যখন Foolday!!🎶

Birthday যখন Foolday!!🎶

 Birthday  যখন Foolday🎶...

প্রিয় মা

প্রিয় মা

  প্রিয় মা,কেমন আছো তুমি...

জুতা চোর

জুতা চোর

এই বিশুটা জুতা চুরি করে ...

তুমি অনন্যা (পর্ব ৩)

তুমি অনন্যা (পর্ব ৩)

পর্ব ৩:একটু এগুনোর পর শা...

সব পেশাই কি সমান???

সব পেশাই কি সমান???

সবাই বলে সব পেশাই সমান!স...

চিরকুট

চিরকুট

  এই গল্পটা আমার না।এটা ...

মিষ্টি ভালোবাসা

মিষ্টি ভালোবাসা

বউটা আজকে আমার উপর অনেক ...

আশ্চর্য এক সুগন্ধ

আশ্চর্য এক সুগন্ধ

লেখিকাঃ রোদেলা রিদাএকবার...

জিহাদ বাবু

জিহাদ বাবু

 হাসি হাসি আর হাসি রিফাহ...

অ্যাক্সিডেন্ট

অ্যাক্সিডেন্ট

অ্যাক্সিডেন্ট আজ আমি ভীষ...

আসক্ত

আসক্ত

১. আমি ভিডিওগেম আসক্ত। এ...

ফল্টুদার পরিচয়পর্ব

ফল্টুদার পরিচয়পর্ব

১.ফল্টুদার নামের ইতিকথা—...

চিঠি

চিঠি

রহস্যময়, জানি চিঠিটি আপন...