আমি (পর্ব৩)


আমি (পর্ব৩)

"এমনি দিসিলাম।কি করছিলি তখন?" 
"ঘুমাচ্ছিলাম।" 
"কেন এসেছিস?" 
"এমনি।এখনি চলে যাবো।"
"এইমাত্রই তো আসলি।" 
"হ্যা।" 
 

আমি বাইরে বের হলাম।এখন আমার কাজ একটা বান্ধুবির বাসায় যাওয়া।বান্ধুবির ছবি আঁকিয়ে দিবো।অনেকদিন ধরে বলছে আমি যেন একটা ছবি  আঁকিয়ে দেই।পৃথিবীতে কত বিচিত্র ধরনের মানুষ আছে।এখন যার বাসায় যাচ্ছি সে হলো নাদিয়া।নাদিয়া অন্যরকম মেয়ে।চুপচাপ থাকে বেশিরভাগ সময়।ক্লাসেও চুপচাপ থাকে।ক্লাসে এত চুপচাপ থাকে কেমনে? আমার তো ক্ষমতা নেই এতক্ষন চুপচাপ থাকার।আমি নাদিয়ার বাসায় গেলাম।নাদিয়া সবকিছু রেডি করে রেখেছে।আমি আঁকতে শুরু করলাম।
"নাদিয়া" 
"হুমম।" 
"এই চুপচাপ থাকিস কেন?"
"এখন কথা বললে তোর মনোযোগ যে নষ্ট হবে।" 

 আমি নাদিয়ার দিকে তাকিয়ে বললাম ,"শুধু কি এখন?" 
তারপর আঁকাতে আঁকাতে বললাম,"তুই তো বেশিরভাগ সময়ই চুপ।"
"এমনি ভালো লাগে না।" 
আমি আস্তে আস্তে বললাম" তোর কি ভালো লাগে?নাদিয়া এত নড়াচড়া করিস কেন?এখন তো আকাচ্ছি।" 
"আর কতক্ষন রে?"
"এইতো একটু।" 
 

একটু পর আমার আকানো শেষ হলো।নাদিয়ার পছন্দ হয়েছে পিকটা।আমি এই বাসা থেকে বের হবার জন্য গেটের কাছে যাচ্ছি তখনই নাদিয়া বলল,"একটু বস।" 
আমি নাদিয়ার দিকে তাকিয়ে বললাম"কেন?"
"আরে একটু বস না?" 
নাদিয়া আমাকে রেখে কোথায় গেলো।একটু পর কেমন যেন চার গন্ধ পাচ্ছি।নাদিয়া চা বানিয়েছে।সে আমার হাতে চা দিয়ে বলল"তোর চা।"
আমি চা খেয়ে বের হয়ে এলাম।বাসায় ফিরে এলাম।বাইরে একটা মেয়েকে দেখছি।কি সুন্দর খেলছে!!বাহ কি সুন্দর পুতুল দিয়ে খেলা!!আমরাও একসময় খেলতাম।

 

গভীর রাতে একা একা বসে আছি।কেউ নেই পাশে।একা থেকেও ভালো লাগে।কাল মামার বাসায় যাবো।মামার বাড়ির আশেপাশটা অনেক সুন্দর।সুন্দর জায়গায় একা একা বসে থেকে ভাবতেও অনেক ভালো লাগে।আবার কয়েকজন মিলে আড্ডা দিতেও ভালো লাগে।সুন্দর জায়গায় সবকিছুই সুন্দর হয়।আমি কল্পনা করছি আমি বসে আছি সুন্দর জায়গায়।অনেকগুলো ফটো তুলছি।তারপর বান্ধুবিরা এলো।তারাও আমার সাথে ফটো তুলতে থাকলো।তারপর জমিয়ে আড্ডা দিচ্ছি।
"কিরে এখনো ঘুমাওনি?" 
তাকিয়ে দেখি আম্মু।
"না।এখনি ঘুমাবো।" 
"ঠিক আছে ঘুমা ও তাড়াতাড়ি।" 
 

আমি দরজা বন্ধ করে ঘরের সব লাইট বন্ধ করলাম।তারপর জানালা দিয়ে সবকিছু বাইরে তাকিয়ে থাকতে শুরু করলাম।এরকম মুহূর্তে আমার কাছে সত্যিই ভালো লাগে।দরজা বন্ধ করে লাইট বন্ধ করে একা একা জানালার পাশে বসে থাকতে ভালো লাগে।কিছুক্ষন পর ঘুমিয়ে পড়লাম।


fe
তিনি এই গল্পটি পছন্দ করেছেন ।

১টি মন্তব্য

fe

fe

এক বছর আগে

অন্যরকম মানুষ কথা কম বলে মানুষের মাঝে আনন্দ খোজা হয় ভালো😇 নেক্সট পড়ি


মন্তব্য লেখার জন্য আপনাকে অবশ্যই লগ ইন করতে হবে


আপনার জন্য

নীল দ্বীপ  ( পর্ব ৪)

নীল দ্বীপ ( পর্ব ৪)

মৃন্ময় বাসায় এলো।রুমে ঢু...

রাত

রাত

সোউউ… করে একটা অটো চলে গ...

কয়েকদিন হাসপাতালে

কয়েকদিন হাসপাতালে

একবার আমার কয়েকদিন হাসপা...

হাস্যকর এক কাণ্ড

হাস্যকর এক কাণ্ড

কয়েকদিন আগের কথা। আমি যে...

নীল দ্বীপ (পর্ব ৫)

নীল দ্বীপ (পর্ব ৫)

মৃন্ময় খেয়াল করে দেখল শু...

প্রিয় জয়ন্ত স্যার

প্রিয় জয়ন্ত স্যার

তখন সবে হাইস্কুলে উঠেছি।...

নিদ্রাহীন

নিদ্রাহীন

রাতে যখন সবাই ঘুমিয়ে পড়ে...

সুবিমলবাবুর স্মরণীয় বাস জার্নি

সুবিমলবাবুর স্মরণীয় বাস জার্নি

১.সুবিমলবাবু অনেকদিন পর ...

অমাবস্যার রাত

অমাবস্যার রাত

গল্পটা খুব আগের না এইতো ...

নীল দ্বীপ (পর্ব২)

নীল দ্বীপ (পর্ব২)

ব্রেকফাস্ট শেষে মৃন্ময় ত...

উধাও  || পর্ব -১

উধাও || পর্ব -১

৬৬ সালের মে মাস…. প্রমাণ...

কুলফিওয়ালা

কুলফিওয়ালা

কুলফি খেতে ভীষণ ভালোবাসে...

ডাবল জিরো

ডাবল জিরো

অংক পরীক্ষায় একেবারে দুট...

রিক্সাচালক

রিক্সাচালক

প্রখর রোদে দাড়িয়ে আছে আয়...

বটমূল

বটমূল

ছুটির ঘন্টা পড়ে গেল.......

শিকার

শিকার

রাত ১ঃ৩০টা।অমাবস্যার রাত...

তুমি অনন্যা  (পর্ব ৬)

তুমি অনন্যা (পর্ব ৬)

রনির মন চাচ্ছে আবার দেখা...

আমি চঞ্চলা

আমি চঞ্চলা

      গল্প পড়ার শখ আমার ...

তুমি অনন্যা

তুমি অনন্যা

তুমি অনন্যা লেখক:ইসরাত ই...

অর্পন

অর্পন

ভোরের সূর্য উঠার ঠিক আগ ...