কে তুমি (শেষ পর্ব )


কে তুমি  (শেষ পর্ব )

                   কে তুমি 

 

★★শেষ অংশ…,

 

….পিছনে তাকাতেই চোখে পড়লো এক অদ্ভুত দৃশ্য হাতে তাহার রিমঝিম চুড়ি, ভিতরে কামড়ায় নীরবতার মাঝে সে কি হাসির ঢল।আমি থমকে দাঁড়ালাম কিছু বলিবার ভাষা আমার নাই, যেন এত কাল অপেক্ষার প্রহর পেরিয়ে আজ বুঝি কোন এক অচেনা সুরের সাথে দেখা হবে!


 

আচ্ছা নীললোহতি, সে যদি অচেনা সুর না হয় তবে কি করবি? আমি নিঃসংকোচে বলিলাম -অপেক্ষা করিবো।

দেখ নীললোহতি আঁধার রাতে জোৎসনা পেরিয়ে কুসুমফুলের হাসি দেখার জন্য অপেক্ষা যতটা সহজ তার চেয়েও বড় কঠিন কারো জন্য অপেক্ষা করা।

আমি নীললোহতি কে বলিলাম- এখন জ্ঞানের কথা রাখতো, পরে সময় হলে শুনবো তোর কথা। 

আচ্ছা নীললোহতি একটা কথা বলবো? 

বল-

যদি সেই তো অচেনা সুর হয় তাহলে কি বলবি 

আমি বলিবো- কে তুমি! 

আমার স্বপ্নের আঁধার ভাঙলো তখনই, যখন ট্রেনের সতর্ক বার্তার হুইসেল পরল।

আমি নিজে নিজেই কথা বলছিলাম।  

পিছনে পিছনে রসিক হাঁটছিল 

 আর হাতে করে বাদাম খাচ্ছিল। 


 

আমি বলিলাম -রসিক সাকুটা সাবধানে পার হও। 

সে বলল -আরে লাগবে না। 

বর্ষার কারণে সাঁকোটা পিচ্ছিল হইয়া উঠেছিল। 

যে ভয় করিয়াছিলাম পরক্ষণে সেটাই হইল-ধপাস। 

সেই দৃশ্য অবলোকন করে অচেনা সুরটা 

জানালার পাশের কামরায় মুখটি বাড়িয়ে 

হাসছিল আর আমিও অবাক নয়নে 

তাহার দিকে একবার তাকালাম আর আমার বন্ধুর দিকে তাকালাম। 


 

আমি নীললোহতি কি করিবো ঠিক বুঝিয়া উঠতে পারলাম না। তাহার কি হাসির ঢল 

তাহা আমার কর্নে আজও বাজে 

যেন রূপময়ী এক  ঐ স্বর্গ। 


 

ক্ষণিক সময়ের মধ্যে ট্রেন ঝিরঝির করিয়া চলতে শুরু করেছিল। আমি দেখিলাম তাহার আখির ভ্রু কুচকে গিয়েছিল, কপালে ভাজ জমে গিয়েছিল। 


 

তাহার আখির কথা কি বলিবো যেন মায়াবী জোৎসনা রাতের 

আধারে ফুটিয়া উঠিয়াছে।

আমি তাকালাম -

সে কি বলল, সে কথা শুনে আমি স্তব্ধ হয়ে দাঁড়িয়ে রইলাম! 

সে বলল -

তুমি কি কিছু বলবে!

বড়োই অদ্ভুত লাগলো এ যেন তাহারি কণ্ঠ,

 সে কন্ঠ আমার কতকালের চিরচেনা তবুও কেন যেন অচেনা মনে হচ্ছিল। 


 

এ যেন তাহারই সুর যেদিন অনেক সময় পর কোন এক স্নিগ্ধ বিকেলে সন্ধ্যের আভায় ছড়িয়ে গিয়েছিল প্রান্তর।

তখন সে বলিয়াছিলো- তুমি কি কিছু বলবে!! 


 

কিন্তু বলতে পারিয়াছিলাম না। 

শুধু দুদিকে মাথা নেরেছিলাম, ততক্ষণে বেশ দেরি হয়ে গিয়েছিলো। ট্রেনটা অনেক দূরে চলে গিয়েছিল। 

আমি নিঃশব্দে বলিয়ে ছিলাম- কে তুমি!!


 

সে তখনও মুখ বাড়িয়ে জানালা দিয়ে আমার দিকে তাকিয়ে শুধু হাতছানি দিয়ে বলেছিলো বুঝিনা মানে শুনতে পাইনা। 


 

তখন প্রবল বেগে আবার বর্ষা শুরু হল। এক সময় বর্ষার আভায় সেই চির অচেনা সুর কোথায় যেন মিলিয়ে গেল। 

আমি তখনও নীরবে দাঁড়িয়ে। সে হারায়নি 

সে বেঁচে আছে আমার মায়ায়। 


 

সে বেঁচে আছে আমার কল্পনায়, সে সেদিন রাতেও এসেছিল আমারই ঘরের জানালায় জোৎসনা আঁধারে স্বপ্ন হয়ে আর বলিয়াছিল তুমি কি কিছু বলবে? 


 

আমি বলেছিলাম- কে তুমি!

 হে, চির অচেনা সুর- কে তুমি! 

সে প্রায়ই স্বপ্ন হয়ে আসে আর বলে তুমি কি কিছু বলবে? 

আমি বলি- কে তুমি?

 নিঃশব্দে সে হাসি হাসি মুখে 

টিপ টিপ পায়ে একথা শুনে চলে যায়। 


 

আর আমি লুকোচুরি স্বপ্নের আভায় 

মিশে,তাহাকে বলি -

হে চির অচেনা সুর 

কে, তুমি!!

 

★★আলহামদুলিল্লাহ,ধন্যবাদ সকলকে…,

 

 💖💖"সত্যি বলতে কাউকে ভালোবাসি বললেই কিন্তু ভালোবাসা হয় না"।কাউকে ভালোবাসলে তার হাত ধরে নদীর ধারে ঘুরতে গেলেই,ভালোবাসা প্রকাশ পায় এমন কোন কথা নেই।

 

ভালোবাসা এক অনুভব এর বিষয়,দুজন দুজনার অজান্তেই একে অপরকে খুব বেশি মিস করা।

 

হঠাৎ যদি প্রিয় মানুষটার সাথে কখনো দেখা হয়, হৃদয় কোনে কেমন যেন এক অদ্ভুত শব্দ সৃষ্টি হতে শুরু করে।

 

চোখের কোনে কেমন যেন আবছা জল জমতে শুরু করে,সময়টা মনে হয় যেন থমকে গেছে।পুরনো সেই স্মৃতি গুলো যেন হৃদয় এর ছোট্ট জানালায় কড়া নাড়তে থাকে,তখন বার বার বলতে ইচ্ছে করে-

 

প্রিয় “খুব ভালোবাসি তোমারে” কিন্তু সেই মধুর কথা কখনো কখনো কারো জীবনে হয়তো বা প্রিয় মানুষটাকে বলা হয়ে ওঠে না।

 

নীললোহিতর জীবনের গল্পের মতোই সে স্বপ্নের মাঝে ধরা দয়, আর মিটিমিটি হাসে

সে জিজ্ঞেস করতে থাকে-

 

কে তুমি?তুমিই কি মোর সেই স্বপ্নের রানী

বলনা প্রিয়, কে তুমি!!…,


Easin Arfat Moin
তিনি এই গল্পটি পছন্দ করেছেন ।

প্রথম মন্তব্য লিখুন


মন্তব্য লেখার জন্য আপনাকে অবশ্যই লগ ইন করতে হবে


আপনার জন্য

ভয়

ভয়

ছোট বেলার থেকেই আমি ছিলা...

পরীক্ষার পূর্বদিন

পরীক্ষার পূর্বদিন

সারাবছর ভালো করে পড়েনি প...

নীল দ্বীপ (পর্ব৩)

নীল দ্বীপ (পর্ব৩)

নীল দ্বীপ পর্ব ৩ মৃন্ময় ...

তুমি অনন্যা  (পর্ব ৬)

তুমি অনন্যা (পর্ব ৬)

রনির মন চাচ্ছে আবার দেখা...

আসক্ত

আসক্ত

১. আমি ভিডিওগেম আসক্ত। এ...

সুবিমলবাবুর স্মরণীয় বাস জার্নি

সুবিমলবাবুর স্মরণীয় বাস জার্নি

১.সুবিমলবাবু অনেকদিন পর ...

নীল দ্বীপ (পর্ব ৫)

নীল দ্বীপ (পর্ব ৫)

মৃন্ময় খেয়াল করে দেখল শু...

শিকার

শিকার

রাত ১ঃ৩০টা।অমাবস্যার রাত...

আমি(শেষপর্ব)

আমি(শেষপর্ব)

তখন রাত।বসে আছি।ছাদে যেত...

অদ্ভুতুড়ে

অদ্ভুতুড়ে

কদিন আগে আমি পিসির বাড়ি ...

নীল দ্বীপ (পর্ব ৬)

নীল দ্বীপ (পর্ব ৬)

পরদিন সকালে শুভ্র আর মৃন...

তুমি অনন্যা

তুমি অনন্যা

তুমি অনন্যা লেখক:ইসরাত ই...

খাঁটি পাগল

খাঁটি পাগল

বিধূবাবুর কাছে এক পাগল এ...

মিঠু

মিঠু

  আমি মিঠু। পুরো নাম মিঠ...

রাত

রাত

সোউউ… করে একটা অটো চলে গ...

ছোটগল্প

ছোটগল্প

আমি গল্প লিখি। তবে লেখক ...

নীল দ্বীপ

নীল দ্বীপ

           লেখক :ইসরাত ই...

নীল দ্বীপ (পর্ব ৭)

নীল দ্বীপ (পর্ব ৭)

মৃন্ময় বললো,"উনি আমাকে ভ...

অদ্ভুত-উদ্ভট

অদ্ভুত-উদ্ভট

এ কোথায় এলাম আমি?হঠাৎ দে...

দার্শনিক ফল্টুদা

দার্শনিক ফল্টুদা

দার্শনিক ফল্টুদা —ফল্টুদ...